Home » পার্টটাইম কাজ » অনুবাদ করে আয় রোজগার

অনুবাদ করে আয় রোজগার

translatorআমাদের মাতৃভাষা বাংলা হলেও বর্তমানে এর পাশাপাশি বিভিন্ন বিদেশি ভাষা সম্পর্কে ভালো জ্ঞান ও ধারণা থাকলে কাজ করার কিছু সুযোগ পাওয়া যায়। তাই দু-একটি বা কিছু বিদেশি ভাষা শিখে আপনিও সুযোগটি নিতে পারেন।
কারণ দিন দিন এ কাজের সুযোগ বাড়ছে। বিদেশি ভাষার ব্যাকরণ জেনে প্রচলিত ভাষারীতির মাধ্যমে অনুবাদ করতে পারলে কাজের অভাব হবে না।

গণমাধ্যমে আন্তর্জাতিক খবর বাংলায় অনুবাদ করার কাজ যেমন রয়েছে, তেমনি বিভিন্ন অনুবাদ কেন্দ্রেও অনুবাদক হিসেবে খণ্ডকালীন বা সার্বক্ষণিক কাজ করার সুযোগ আছে।

বিভিন্ন দেশের দূতাবাস, বিভিন্ন সরকারি, আধাসরকারি প্রতিষ্ঠান, পর্যটন ও ট্যুর অপারেটর প্রতিষ্ঠান, বিদেশি এনজিও, জাতিসংঘের শান্তিরক্ষী বাহিনীতে নিযুক্ত বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ইউনিট, বিভিন্ন স্যাটেলাইট চ্যানেল, সরকারি-বেসরকারি রেডিও প্রভৃতি প্রতিষ্ঠানে অনুবাদক নিয়োগ দেওয়া হয়। পত্রিকা অফিসগুলোতে অনুবাদকের ভীষণ কদর। এ ছাড়া ফ্রিল্যান্স অনুবাদকরা বিদেশি কোনো জার্নালে প্রকাশিত বিশেষ ফিচার, বিদেশি আলোচিত বই অনুবাদ করে প্রকাশনা প্রতিষ্ঠানে বিক্রি করেও আয় করতে পারেন।

অনুবাদকের যোগ্যতা
অনেকের ধারণা, যারা ইংরেজিতে বা বাংলায় পড়াশোনা করেন, তারাই ভালো অনুবাদ করতে পারেন। এ ধারণা একেবারেই ভুল। কারণ আমাদের দেশে অনেক ছেলেমেয়েই আছে, যারা ইংরেজিতে বা বাংলায় অনার্স-মাস্টার্স করেও সঠিকভাবে অনুবাদ করতে জানে না। আবার অনেকে আছেন, যারা অন্য বিষয়ে পড়েও ভালো অনুবাদ করতে পারেন। আর যারা দক্ষতার সঙ্গে এ কাজ করতে পারেন, তাদের এ পেশায় ভালো করার সম্ভাবনা বেশি। একজন অনুবাদকের অন্যতম যোগ্যতা হলো ভাষার সঠিক ব্যবহার জানা।

নিজেও গড়তে পারেন অনুুবাদকেন্দ্র
বিদেশি ভাষার দক্ষতাকে কাজে লাগিয়ে আপনি নিজেই একটি অনুবাদকেন্দ্র গড়ে তুলতে পারেন। এ ধরনের কেন্দ্র গড়ে তুলতে বিশেষ কোনো বিনিয়োগের প্রয়োজন হয় না। একটি ছোট্ট অফিস নিয়েও আপনি এ ব্যবসা শুরু করতে পারেন। দলিল, হলফনামা, জাতীয়তা সনদ, নিকাহনামা, জীবনবৃত্তান্ত, চাকরির জন্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রশংসাপত্র, বিদেশে উচ্চশিক্ষার জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র, ভ্রমণ বা কাজের জন্য বিদেশে গমনেচ্ছুদের বিভিন্ন কাগজপত্র, ব্যাংক সলভেন্সি ও স্টেটমেন্ট, এফিডেভিট, ট্যাক্স সংক্রান্ত কাগজপত্র বাংলা থেকে বিভিন্ন ভাষায় অনুবাদ করে আয় করতে পারেন। অনলাইনে বিভিন্ন ভাষায় থাকা প্রয়োজনীয় তথ্য অনুবাদ করে পারিশ্রমিকের বিনিময়ে ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানে সরবরাহ করতে পারেন।

আয়ের অনেক সুযোগ
চাকরির বাজারে একজন অনুবাদকের চাহিদা অনেক। ভালো বেতনও পাওয়া যায়। তবে সেটা অনেকটাই নির্ভর করে আপনি কোন প্রতিষ্ঠানে চাকরি করছেন তার ওপর। প্রাথমিকভাবে আট হাজার থেকে শুরু করে ৩৫ হাজার টাকা পর্যন্ত বেতন পাওয়া সম্ভব।

অনুবাদ কেন্দ্রগুলোতে প্রচুর খুচরা গ্রাহক পাওয়া যায়, যাঁরা এক থেকে দুই পৃষ্ঠা অনুবাদ করাতে আসেন। প্রতি পৃষ্ঠা ৫০ থেকে ১০০ টাকা হিসেবে সম্মানী পাওয়া সম্ভব। অনেকে বড় ধরনের অনুবাদ করান। সে ক্ষেত্রে তিন থেকে ১০ হাজার টাকাও সম্মানী মিলতে পারে।

বিদেশি ভাষা শিখবেন কোথায়
শহরের যেকোনো ইংরেজি শিক্ষাকেন্দ্রে ভর্তি হয়ে নিয়মিত অনুশীলনের মাধ্যমে সহজেই ইংরেজি ভাষা রপ্ত করা সম্ভব। তবে অন্য বিদেশি ভাষা যেমন কোরিয়ান, হিন্দি, জাপানিজ, চায়নিজ, উর্দু, ফরাসি, ইতালিয়ান, মালয়েশিয়ান ইত্যাদি ভাষা রপ্ত করতে হলে আপনাকে ঢাকা আসতে হবে।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আধুনিক ভাষা শিক্ষা ইনস্টিটিউটের কোর্সগুলো বেশ মানসম্মত। খরচও কম। এ ছাড়া ঢাকা ল্যাংগুয়েজ ক্লাব, রাশিয়ান কালচার সেন্টার, ব্রিটিশ কাউন্সিল, জার্মান কালচারাল সেন্টার, আলিয়ঁস ফ্রঁসেজ এবং অন্যান্য দেশের দূতাবাসের কালচারাল সেন্টারেও যোগাযোগ করতে পারেন।

Career Intelligence on Youtube